আদমদীঘিতে গনধর্ষণ মামলায় আরও দুইজন গ্রেফতার2 মিনিটে পড়ুন

35

 

আবু মুত্তালিব মতি, আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহার বাসা থেকে আত্মীয়ের বাসায় যাবার পথে এক নারী (২০) গনধর্ষণ মামলায় আরও দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, সান্তাহার রথবাড়ির সৈয়ম আলীর ছেলে জহুরুল ইসলাম (২৫) ও আইয়ুব আলীর ছেলে নাহিদ (২৫)। গত শুক্রবার রাতে মামলার তদন্তকারি সান্তাহার ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক আনিছুর রহমান ঢাকার কারাঙ্গীচর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করেন। এ নিয়ে এ মামলায় মোট ৫জন আসামীকে গ্রেপ্ততার করা হয়।

উল্লেখ্য : আদমদীঘির সান্দিড়া গ্রামের ওই নারী শখের পল্লী বিনোদন কেন্দ্রে ভাজা বিক্রির করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। বিগত ২০১৯ সালের ৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ওই নারীকে তিয়রপাড়া ব্রিজের নিকট ৮/৯ জনের একদল বখাটে যুবক পথরোধ করে চাকুর ভয় দেখিয়ে টেনে হেচড়ে নির্জন স্থানে নিয়ে গনধর্ষণ করে। পরে পথচারীরা ওই নারীকে দমদমা গ্রামের খালের বাঁধ থেকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় গনধর্ষনের শিকার নারী নিজেই বাদি হয়ে ৫জনের নাম উল্লেখসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষন মামলা করেন। এ মামলায় পুলিশ সম্প্রতি জুয়েল, মমিন ও রেজোয়ান নামের তিনজনকে গ্রেফতার করে। এরপর গত ২৩ অক্টোবর রাতে ঢাকার কামরাঙ্গীচর এলাকা থেকে জহুরুল ইসলাম ও নাহিদকে গ্রেফতার করে।

ওসি জালাল উদ্দীন জানান, গতকাল শনিবার আসামীদের আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।