ধর্ষণ চেষ্টা: ধুনটে বখাটে কুপিয়ে গৃহবধূর সম্ভ্রম রক্ষা2 মিনিটে পড়ুন

42

আমিনুল ইসলাম শ্রাবণ

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় জাহাঙ্গীর আলম (২৮) নামে এক বখাটেকে বটি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে ধর্ষণের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন এক গৃহবধূ। জাহাঙ্গীর আলম উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের অলোয়া গ্রামের মোহাম্মাদ আলীর ছেলে। এসময় ওই গৃহবধূকে বটি দিয়ে কুপিয়ে আহত করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে বখাটে জাহাঙ্গীর আলম। আহত গৃহবধূ ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও বখাটে জাহাঙ্গীর আলম বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

জানা গেছে, দুই সন্তানের জননী ওই গৃহবধূ (৩৫) অলোয়া গ্রামের বাসিন্দা। তার স্বামীর সাথে দীর্ঘদিন ধরে বনিবনা না হওয়ায় মেয়েটি অলোয়া গ্রামে নিজ বাড়িতে বসবাস করেন। একই গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের সাথে তার দীর্ঘদিন ধরে পরিচয় রয়েছে। পরিচয়ের সূত্র ধরে জাহাঙ্গীর মেয়েটির বাড়িতে অবাধে যাতায়াত করেন। জাহাঙ্গীর আলমের সাথে মেয়েটির আর্থিক লেনদেনের সম্পর্ক রয়েছে।

এ অবস্থায় শুক্রবার রাত ৮টার দিকে মেয়েটি বাড়িতে গৃহস্থলী কাজ করছিলেন। এ সময় ওই বাড়িতে অন্য কেউ ছিল না। এ সুযোগে প্রচন্ড বৃষ্টি উপক্ষো করে জাহাঙ্গীর আলম মেয়েটির বাড়িতে যান। ঘরের ভেতর দু’জনের কথাবার্তার এক পর্যায়ে জাহাঙ্গীর আলম মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তখন মেয়েটি ধর্ষণের হাত থেকে রক্ষা পেতে জাহাঙ্গীর আলমকে বটি দিয়ে কোপাতে থাকেন। এসময় মেয়েটিকেও পাল্টা আক্রমন করে জাহাঙ্গীর। তাদের চিৎকারে প্রতিবেশী লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছার আগেই মেয়েটিকে কুপিয়ে আহত করে জাহাঙ্গীর পালিয়ে গেছে।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, সংবাদ পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেয়েটির চিকিৎসার খোঁজখবর নেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।