আদমদীঘিতে কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা2 মিনিটে পড়ুন

47

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি

‘মৃত্যুর জন্য তিশা দায়ী’ এমন চিনকুট লিখে গলায় ওড়নার ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে রোনক (১৭) নামের এক কলেজছাত্র। শুক্রবার ভোররাতে আদমদীঘির শিবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রোনক উপজেলার ডালম্বা গ্রামের বকুলের ছেলে। সে ছোট বেলা থেকেই তার নানা বাড়ি শিবপুর গ্রামে বাবলুর বাড়িতে থেকে পড়াশুনা করছিল। পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিযাউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, রোকন আদমদীঘি রহিম উদ্দীন ডিগ্রী কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্র। তার সাথে একটি মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে সে জানতে পারে ওই মেয়ের অপর একটি ছেলের সাথেও সম্পর্ক রয়েছে।  বিষয়টি জানার পর রোকন গত শুক্রবার ভোর রাতে তার শয়ন ঘরে ফ্যানের সাথে গলায় ওড়নার ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। লাশের পাশে একটি চিরকুট পাওয়া যায়। ওই চিরকুটে লেখা ছিল “তিশা সিয়ামকে ভালবাসে” তুমি তাকে নিয়ে ভালো থাকো। আমি আর বেঁচে থাকতে পারলাম না। আমার মৃত্যুর জন্য তিশা দায়ী। চিরকুটটি থানা পুলিশ উদ্দার করেছে।

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।