গাবতলীর নবগঠিত সুখানপুকুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকার মাঝি হতে চান রাসেল মিয়া2 মিনিটে পড়ুন

211

এস এম সালমান হৃদয় স্টাফ রিপোর্টারঃ

বগুড়া গাবতলী উপজেলার নবগঠিত সুখানপুকুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন চান জেলা আওয়ামী যুব লীগনেতা ও গাবতলী উপজেলা আওয়ামী যুব লীগের প্রচার সম্পাদক তৃণমূল রাজনৈতিক রাসেল মিয়া। নিজে বিভিন্ন ওয়াডে ব্যাপক প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন এ তরুণ নেতা। তাকে নিয়ে প্রচারনায় সরব হয়ে উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেইজগুলিও। এসব প্রচারণায় ইতিবাচক সাড়া মেলেছে ওয়ার্ডের সাধারণ ভোটারদের মধ্যে চলছে ব্যাপক আলোচনা।
জানা যায়, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে যুবলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন বিশিষ্ট ঠিকাদারী ব্যবসায়ী রাসেল মিয়া।একেবারে তৃণমূল পর্যায় থেকে রাজনৈতিক ক্যারিয়ার গড়ে তুলেন তিনি। ১/১১ এর রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের পর দলের দুর্দিনে শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনসহ নানান আন্দোলন সংগ্রামে সামনের সারিতে থেকে সাহসিকতার সঙ্গে নেতৃত্ব দেন রাসেল মিয়া। তার রাজপথে সাহসী অবস্থানের ফলে তাকে হামলা-মামলা ও নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে অনেকবার।
দলীয় কর্মকান্ডের পাশাপাশি নবগঠিত সুখানপুকুর ইউনিয়ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডেঅংশ নিচ্ছেন সমানভাবে। ফলে ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়াডে ব্যাপক জনপ্রিয়তা ও গ্রহনযোগ্যতা তৈরি হয়েছে এ তরুণ নেতার।এ ব্যাপারে রাসেল মিয়া বলেন, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করেই যুবলীগের রাজনীতি করে আসছি। দলের সুসময়-দুঃসময়ে পাশে থেকেছি। রাজপথের পাশাপাশি তৃণমূল নেতাকর্মীদের নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। আশা করি দলে সেটি মূল্যায়িত হবে। দলীয় মনোনয়ন পেলে নৌকার জয় নিশ্চিত করে নবগঠিত সুখানপুকুর ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলতে সক্ষম হব ইনশাআল্লাহ।