সোনাতলায় গাজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক ও সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার5 মিনিটে পড়ুন

87

সোনাতলা প্রতিনিধিঃ

মাদক মুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে ‘বাংলাদেশ পুলিশ’ রাজশাহী রেঞ্জ (ডিআইজি) মহোদ্বয়ের দিক নির্দেশনায় গত ১০’ই নভেম্বর হতে ১৫’ই নভেম্বর পর‌্যন্ত ৫ দিনের বিশেষ অভিযানের অংশ হিসেবে বগুড়ার সোনাতলা থানার সু-দক্ষ অফিসার ইনচার্জ মোঃ রেজাউল করিম রেজা’র নেতৃত্বে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে থানার চৌকশ এসআই সোহেল রানা এক মাদক ব্যবসায়ীকে ১ কেজি গাজাসহ আটক করে। অপরদিকে আরো একজন সফলতা অর্জনকারী এএসআই আতিকুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্সসহ একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৩ মাসের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিকে গ্রেফতার করেছে।
জানাযায়, উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের গ্রাম করমজা দাসপাড়া গ্রামের মৃত বাদল চন্দ্র দাসের ছেলে শ্রী নয়ন চন্দ্র দাস দির্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবস্যা চালিয়ে আসছিলো। এমন তথ্যের আলোকে ১১’ই নভেম্বর বুধবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোনাতলা থানার সু-দক্ষ অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা’র দিক নির্দেশনায় থানার চৌকশ এসআই সোহেল রানা সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে দক্ষতার সাথে সু-কৌশলে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে মাদক ব্যবসায়ী নয়নকে তার নিজ বাড়ি থেকে ১ কেজি গাজা সহ আটক করে।
অপরদিকে থানার আরো একজন সফলতা অর্জনকারী এএসআই আতিকুর রহমান ঐদিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে একটি অভিযান পরিচালনা করে পারিবারিক কলহের মামলায় দির্ঘদিন গাঁ-ঢাকা দিয়ে থাকা ৩ মাসের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের রংরারপাড়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে শিমুল প্রামানিককে তার নিজ এলাকা থেকে আটক করে।
এ বিষয়ে সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রেজাউল করিম রেজা জানান, মাদককে নির্মুল করতে সারাদেশ তথা বিভাগীয় থেকে শুরু করে জেলা, উপজেলা পর‌্যায়ের সকল স্থানে বিশেষ অভিযানের মাধ্যমে ‘বাংলাদেশ পুলিশ’ নিরলসভাবে গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা পালন করে যাচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে সোনাতলা থানাতেও এ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তিনি আরো জানান, ইতিমধ্যেই আমরা মাদক সহ সকল ধরনের অন্যায় মুলক কাজ নির্মুল করতে এ উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি গঠন করেছি। যার নেতৃত্বে রয়েছেন এ থানার দায়িত্বরত দক্ষ অফিসাররা। সেইসাথে এ উপজেলার যুবসমাজকে মাদকের কবল থেকে রক্ষা করতে এটি নির্মুলে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।
এদিকে থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ ইয়ামিন আলী জানান, সারাদেশে মাদকের বিরুদ্ধে সরকার জিরো ট্রলারেন্স ঘোষনা করেছেন। তাই আমি পেশাগত দ্বায়িত্ব থেকে আমার সকল সহযোদ্ধাদের দিক নির্দেশনার মাধ্যমে এটি নির্মুলে সর্বাধীক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। সেইসাথে ‘মাদককে না বলি, নিরাপদ জিবন গড়ি’ এই প্রবাদকে সুনিশ্চিত করতে প্রশাসনিকভাবে সর্বদায় মাদক রিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।
অপরদিকে থানার এসআই সোহেল রানা ও এএসআই আতিকুর রহমান জানান, এ উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধারনের সুন্দর ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করতে ও যুবসমাজকে মাদকের কবল থেকে রক্ষা করতে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রেজাউল করিম রেজা স্যারের দিক নির্দেশনা অনুযায়ী ইতিপুর্বে বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করে আমরা সফলতা অর্জনে সক্ষম হয়েছি। সেইসাথে আগামিতেও প্রশাসনিকভাবে মাদক বিরোধী এ অভিযান অব্যাহত রেখে গোটা উপজেলাবাসিকে মাদকমুক্ত সমাজ উপহার দিতে সর্বাধীক চেষ্টা চালিয়ে যাবেন বলেও জানান তারা।
এসময় থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা স্থানীয় সাংবাদিকদের তার লিখিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, ১ কেজি গাজাসহ আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী শ্রী নয়ন চন্দ্র দাসের নামে মাদকদ্রব্য আইনে একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করে ১২’ই নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে বগুড়া জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে এবং আটককৃত ৩ মাসের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মোঃ শিমুল প্রামানিককেও জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে বলেও লিখিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্ল্যেখ করেন তিনি।