শেরপুরে ভ্রাম্যমাণে আদালতে ২ ফার্মেসিকে জরিমানা1 মিনিটে পড়ুন

32

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় মাস্কের ব্যবহার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। অভিযানে লাইসেন্স ছাড়াই ফার্মেসি পরিচালনা করায় দুইজনকে মোট দুই হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন আদালত।
শনিবার (১৪ নভেম্বর) বিকেলে এই অভিযান পরিচালনা করেন শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. লিয়াকত আলী সেখ। ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ প্রধানমন্ত্রীর এই অনুশাসন বাস্তবায়নে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, অভিযানে মাস্ক পরতে মাইকিং করে সকলকে সচেতন করা হয়। এ সময় ওষুধের দোকানে ড্রাগ লাইসেন্স পর্যবেক্ষণ করা হয়। এসময় লাইসেন্স ছাড়াই ফার্মেসি পরিচালনা করায় দুইজনকে মোট দুই হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। পাশাপাশি মূল্যতালিকা টাঙানো নিশ্চিতকরণে দোকানগুলোতে মূল্যতালিকার নমুনা সরবরাহ করা হয় ।
ইউএনও মো লিয়াকত আলী সেখ বলেন, আসন্ন শীতে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণের আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই ঘরের বাইরে বের হতে হলে অবশ্যই মুখে মাস্ক পরতে হবে। মাস্ক না পরা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। মাস্ক পরিধান না করলে জেল জরিমানা হতে পারে।