দিকভ্রান্ত পথিক1 মিনিটে পড়ুন

49

ফারহানা হৃদয়িনী

কখনো দেখিনি তোমায় এতটা নিবিড় করে,
কখনো ডাকিনি তোমায় ঘুম ভাঙা ভোরে,
কখনো বাধিনি সুর হৃদয়ের তারে,
কখনো বলিনি কথা এতটা মধুর সুরে।

জীবনের ক্লান্ত শান্ত বিষণ্ণ দিনে,
ধরেছি মায়ার হাত কিছু স্বপ্নবুনে।
জানি মরিচাধরা এই জীবনের তরী,
পারবেনা দিতে ওই অগ্নিসাগর পাড়ি,
তবু আশায় মাখামাখি প্রতিটি নিঃশ্বাস,
শুষে নেবো বেদনা,অশ্রু আর প্রতিটি বিশ্বাস।

হাতধরে হেঁটে যাবো ওই বেদনা শহর,
যেখানে ঘুমিয়ে আছে সুখের প্রতিটি প্রহর।
চাপা ক্রন্দনের বন্যায় ভেসে গেছে যে নির্ঘুম আঁখি,
আর্তনাদের কাঁটাতারে বেঁধে মন আজি আহত পাখি।

ক্ষতবিক্ষত সময় তোমারই ছলনায়,
মায়ার বাঁধনে তবু দিকভ্রান্ত হেটে যায়।
দুর্গম এ পথের শেষ কোথা জানেনা পথিক,
কখনো চলে মন চাওয়া পাওয়া হিসেবের অধিক।
চাওয়া পাওয়া হিসেবের খাতা অপূর্ণতায় মাখামাখি,
তবুও জীবন ডাকে সুখ তুমি ফিরে আসবে কি?