দুপচাঁচিয়ায় স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার,অভিযুক্ত আটক2 মিনিটে পড়ুন

33

দুপচাঁচিয়া(বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলায় দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে (১৬) ধর্ষণের ঘটনায় মো. আতিক হাসান ওরফে আইয়ুব নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শনিবার রাতে হাসানকে তার গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

হাসানের বাড়ি দুপচাঁচিয়া উপজেলায়। তিনি সম্পর্কে ওই ছাত্রীর চাচাতো ভাই।

পুলিশ ও ওই ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ওই ছাত্রীর বাবা ঢাকায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। ওই ছাত্রী তার মায়ের সাথে বাড়িতে থাকেন। স্কুলে যাওয়া আসার পথে ওই ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দেন হাসান। এতে রাজি ছিল না ওই ছাত্রী। এক পর্যায়ে বিয়ের প্রস্তাব দেন হাসান। তাতেও রাজি নয়নি ওই ছাত্রীর বাবা মা। এর মধ্যে গত গত ১০ সেপ্টেম্বর ওই ছাত্রীর মা একই উপজেলার অন্য গ্রামে আরেক মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। ওই দিন ওই ছাত্রী বাড়িতে একাই ছিলেন। এই সুযোগ সেদিন রাত ১০ টার দিকে হাসান ওই শিক্ষার্থীর বাড়িতে ঢুকে ধর্ষণ করেন। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রী চিৎকার করলে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসেন। পরে হাসান পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় গতকাল শনিবার ওই মেয়ের বাবা বাদী হয়ে বগুড়ার দুপচাঁচিয়া থাকায় হাসানকে আসামি করে ধর্ষণ মামলা করেন।

দুপচাঁচিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাসান আলী জানান, মামলার পরেই শনিবার রাতে ধর্ষণের অভিযোগে হাসানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ রোববার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।