বগুড়ায় ধরা পড়ল `আন্তঃজেলা চোর’ চক্রের ৫ সদস্য !!2 মিনিটে পড়ুন

31

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় আন্তঃজেলা চোর চক্রের ৫ জন সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ সময় ৩টি ল্যাপটপ, ১ টি সিস্টেম ইউনিট, ৩ টি মুঠোফোন, ১ টি গ্যাস সিলিন্ডার, ১টি গ্যাসের চুলা ও চুরি করার সিঁদকাঠিসহ আরও অনেক সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

বুধবার রাতে শেরপুর উপজেলার কলেজ রোড এলাকায় স্থানীয়রা তিনজনকে চোর সন্দেহে আটকে রেখে মারধর করেন। ওই তিনজন হলেন, শেরপুর উপজেলার বৃন্দাবনপাড়া গ্রামের জীবন (২৯), রামচন্দ্রপুর গ্রামের মোসাদ্দেক হোসেন (৩৫) ও সাহাপাড়া গ্রামের বাবু মদন চন্দ্র মোহন্ত(৩০)।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেপ্তার করে। পরে ওই তিনজনের দেয়া তথ্যে অভিযান চালিয়ে রাজু নামের আরও একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। রাজু শেরপুর উপজেলার রনবীরবালা ঘাটপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। গ্রেপ্তার রাজু চুরির মাল কেনা-বেচা করেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

চোর চক্রের আরেক সদস্য সাখাওয়াত হোসেন শিমুল (৪০) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শিমুল উপজেলার ধনকুন্ডি জমিদারপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। অভিযানে চুরি হওয়া জিনিপত্রগুলো উদ্ধার করা হয়।

এসব নিশ্চিত করেছেন শেরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠিয়ে আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে ৭ দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন করা হবে। গ্রেপ্তারকৃতরা আন্তঃজেলা চোর চক্রের সদস্য। তারা সংঘবদ্ধভাবে বিভিন্ন জেলায় চুরি করে।

পুলিশ কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, শেরপুর উপজেলার এ্যাডভান্স পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালক তাজকিরুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলার অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। এর আগে ২৪ নভেম্বর ওই প্রতিষ্ঠানে চুরির ঘটনা ঘটে।।