দুঃসময় মোকাবেলায় সারাবিশ্বে জননেত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই- বগুড়ায় এস এম কামাল5 মিনিটে পড়ুন

55

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা এস এম কামাল হোসেন বলেছেন, দু:সময়ের মোকাবেলায় সারাবিশ্বে জননেত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোনার বাংলা গড়ে তুলছেন। করোনায় যখন সারাবিশ্বে অর্থনীতি ভেঙে পড়ছিল তখন বাংলাদেশের অর্থনীতির চাকা শুধু সচল নয় প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছিল। শুধু করোনা নয় যখন যে সমস্যায় দেশ সম্মুখীন হয়েছে, শেখ হাসিনা বলিষ্ঠ নেতৃত্বে তার মোকাবেলা করে দেশের মানুষকে সমৃদ্ধ করেছেন। আমরা অহংকার করে বলতে পারি, আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শর সৈনিক। আ’লীগ সারাজাতির কাছে অহংকার করে বলতে পারে যিনি বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু তিনি আমাদের আদর্শের পিতা, আমাদের একজন জননেত্রী শেখ হাসিনা রয়েছেন। আমরা সেই দলের কর্মি, যে দল পাকিস্তানের দু:শাষন, শোষন, নির্যাতন, সা¤প্রদায়িক রাজনীতির বিরুদ্ধে বাঙ্গালী জাতিকে বিশ্বের দরবারে স্বাধীন ভুখন্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছে। বঙ্গবন্ধু আমাদের একটি স্বাধীন দেশ দিয়েছেন, তিনি সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে দিনরাত পরিশ্রম করছেন। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রচেস্টা সফল করতে হবে। তিনি বলেন, বগুড়ায় আওয়ামী লীগের ভোট বেড়েছে, বগুড়ায় আ’লীগের সমর্থন আছে, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সমর্থন আছে। তাই সংগঠন দল সুসংগঠিত করতে হবে। নব নির্বাচিত কমিটির নেতৃবৃন্দদের সংগঠন শক্তিশালী করতে একযোগে কাজ করবেন। কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাষ্কর্য ভাংচুরের ঘটনা দেশকে অস্থিতিশীল করার প্রক্রিয়া। একটি মহল শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রুখে দিতে নানা ধরনের চক্রান্ত করে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। তাই সকলকে এক হয়ে স্বার্থান্বেষী মহলের সকল চক্রান্ত নস্যাৎ করে দিতে হবে। বগুড়া জেলার সকল নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে হবে। তিনি বুধবার সন্ধায় বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের নবগঠিত কার্যনির্বাহি কমিটির প্রথম সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কথাগুলো বলেন। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মজিবর রহমান মজনুর সভাপতিত্বে এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু। প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি’র সঞ্চালনায় শোক প্রস্তাব পাঠ করেন দপ্তর সম্পাদক আল রাজি জুয়েল।

সভায় এমপি আলহাজ্ব হাবিবর রহমান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি ডা: মকবুল হোসেন, সহ-সভাপতি টি জামান নিকেতা, টিএম মুসা পেস্তা, এড. আব্দুল মতিন, আলহাজ¦ আবুল কালাম আজাদ. এড. মকবুল হোসেন মুকুল, এড. রেজাউল করিম মন্টু, প্রদীপ কুমার রায়, মিজানুর রহমান রতন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহন, আসাদুর রহমান দুলু, সাগর কুমার রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহরিয়ার আরিফ ওপেল, এড. জাকির হোসেন নবাব, অধ্যক্ষ শাহাদাত আলম ঝুনু, আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. তবিবর রহমান, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক মনছুর রহমান মন্নু, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক এড. সাইফুল ইসলাম, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক শাহ আখতারুজ্জামান ডিউক, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল খালেক বাবুল, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শেরিন আনোয়ার জর্জিস, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এড. শফিকুল আলম আক্কাস, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নাসরিন রহমান সীমা, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক আনিসুজ্জামান মিন্টু, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মাশরাফি হিরো, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ার পারভেজ রুবন, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক তপন চক্রবর্ত্তি, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক রুহুল মোমিন তারিক, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক এস এম শাহজাহান, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক এবিএম জহুরুল হক বুলবুল, উপ দপ্তর সম্পাদক খালেকুজ্জামান রাজা, উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাহমুদুল ইসলাম রুমেল সহ কার্যনির্বাহি কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পপমাল্য অর্পন করেন কেন্দ্রিয় নেতা।