যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বুড়িগঙ্গায় ভাসিয়ে দিতে চায় তাদের বঙ্গোপসাগরে ভাসিয়ে দিতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষ প্রস্তুত- লিটন4 মিনিটে পড়ুন

39

এস এম সালমান হৃদয় স্টাফ রিপোর্টারঃ

যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বুড়ি গঙ্গায় ভাসিয়ে দিতে চায় তাদের সকলকে বঙ্গোপসাগরে ভাসিয়ে দেওয়ার জন্য মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষ প্রস্তুতি গ্রহণ করছেন এমন মন্তব্য করে বগুড়া জেলা যুব লীগের সভাপতি শুভাশিস পোদ্দার লিটন বলেছেন, ধর্মের অপব্যবহার কারীরা সৃষ্টিকর্তার সাথে প্রতারণা করছে। ধর্মকে ব্যবহার করে ধর্মব্যবসায়ীরা কোমলমতি মানুষের বিবেককে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে। এদের স্পর্ধা এই পর্যায়ে উপনীত হয়েছে যে, তারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য সম্পর্কে সমন্ধে অপব্যাখ্যা দিয়ে কথা বলে। যারা বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করে তাদের এদেশে বসবাসের কোনো সুযোগ নেই।
১২ ডিসেম্বর ২০২০ শনিবার বিকেলে বগুড়া গাবতলীর নবগঠিত সুখানপুকুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুব লীগের কর্মী সম্মেলনে এসব কথা বলেন।
লিটন আরো বলেন, প্রাণঘাতী করোনা মহামারিতেও জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন। স্বাধীনতার পরে আওয়ামী লীগের বাইরে যারা ক্ষমতায় ছিল তারা কখনোই দেশের অর্থনৈতিক মুক্তির কথা ভাবেননি। গরিব মানুষের কথা ভাবেননি। জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পরে অসহায় মানুষগুলির ঠিকানা প্রদান করেছেন। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে আজকে প্রত্যেকটি গৃহহীন মানুষকে গৃহের সংস্থান করে দিয়েছেন। কোভিড-১৯ চলাকালীন একজন মানুষও অনাহারে নেই এবং তিনি এর প্রতিষেধক বিনামূল্যে বিতরণ এর দাবি করেছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। কাজেই প্রত্যেকটি দেশপ্রেমিক মানুষের আজকে সয়কল অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে নৌকাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।কর্মী সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম ডাবলু। আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা টি এম মুসা পেস্তা, সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আলমগীর হোসেন, গাবতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম লতিফুল বারী মিন্টু,গাবতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রাঙ্গা , গাবতলী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বিপ্লব সভাপতিত্বে দারুন সম্পাদক শাহজাহান আলীর সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী যুব লীগের সহ-সভাপতি বাপ্পী কুমার চৌধুরী, অধ্যাপক নাসিরুজ্জামান টিটো,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাইয়ূল তোফায়েল কোয়েল,সাজেদুর রহমান সিজু,জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, জেলা যুব লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান সিদ্দিক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ নেতা জান্নাতুল আলম রুমেল, অনিকা মোস্তাফিজ, শ্রাবণ আবেদিন সানি, রাসেল মিয়া উপজেলা যুব লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহ হেল বাকী,সদস্য সাব্বির হাসান জাফরু পাইকার প্রমুখ। পরে সবার সম্মতিক্রমে শ্রী পলাশ চন্দ্র রায় পলান কে আহবায়ক আব্দুল মতিন, আব্দুল মালেক,আজিজুল হাকিম, জিয়াউর রহমান রুবেল কে যুগ্ম আহবায়ক, আতিকুল ইসলাম আতিক, আব্দুল মোমিন, আব্দুল কুদ্দুস কে সদস্য করে আহবায়ক কমিটি গঠন হয়।