বগুড়া জেলা পুলিশের আয়োজনে ১২৩ পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারকে সংবর্ধনা3 মিনিটে পড়ুন

34

আব্দুল আউয়াল

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বগুড়ায় অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পুলিশ মুক্তিযোদ্ধার ১২৩ পরিবারকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। বুধবার সকাল ১১ টায় জেলা পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়ামে ওই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।  সংবর্ধিতরা মহান মুক্তিযুদ্ধে বিভিন্ন পদে কর্তব্যরত ছিল দেশের বিভিন্ন জেলায়। পরে তারা অবসর নেন ও বর্তমানে বগুড়া জেলার বসবাস করছেন।

মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেওয়া ওই ১২৩ জন পুলিশ সদস্যর মধ্যে ডিআইজি ও পুলিশ সুপার (এসপি) ১ জন, সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) ৩ জন, পরিদর্শক ১৮ জন, উপ-সহকারী পরিদর্শক ১৫ জন,  সহকারী উপ- পরিদর্শক ১৪ জন ও সদস্য ৭১ জন।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা তার বক্তব্যে বলেন,  মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান আজীবন ইতিহাসের স্বার্ণক্ষরে লেখা থাকবে।আপনারা পুলিশের চাকুরি করে শুধু সাধারণ মানুষকে সেবায় দেননি সাথে আমাদের  স্বাধীন দেশটাও উপহার দিয়েছেন বিধায় আমরা চাকরি করছি।
আপনাদের প্রতি অনুরোধ যারা এখন মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতা তাদের বিষয়ে সাধারণ মানুষদের সচেতন করবেন।  এরা দেশ বিরোধী, সংবিধান বিরোধী।

এর আগে স্মৃতিচারণ পর্বের আলোচনা সভায় উপস্থিত অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য ও শহীদ পরিবারের সন্তানদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন  সহকারী পুলিশ সুপার (অব.) ইমতেজার রহমান, পুলিশ পরিদর্শক (অব.) মনসুর রহমান, আজিজুল ইসলাম ও সদস্য আব্দুল ওয়াহেদ,শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান বগুড়া ট্রাফিক পুলিশের পুলিশ পরিদর্শক সালেকুজ্জামান খান।

ওই সময় বক্তারা জেলা পুলিশের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে তাদের মুক্তিযুদ্ধের সময় বিভিন্ন স্মৃতি তুলে ধরেন। এর পাশাপাশি জেলা পুলিশের কাছে সব সময় তাদের প্রতি এরকম সৌহার্দ্য রাখার অনুরোধ জানান।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হায়দার (প্রশাসন), আব্দুর রশিদ (অপরাধ), মোতাহার হোসেন (ডিএসবি), রফিকুল আলম (ট্রেনিং ইন-সার্ভিস), ফয়সাল মাহমুদ (সদর সার্কেল ও মিডিয়া মুখপাত্র) সহ ডিবির ওসি আব্দুর রাজ্জাক উপস্থিত ছিলেন।