পেলেকে ছাড়িয়ে নতুন উচ্চতায় মেসি3 মিনিটে পড়ুন

37

বগুড়া এক্সপ্রেস ডেস্ক

আগের ম্যাচে এক গোল করে স্পর্শ করেছিলেন পেলেকে। মঙ্গলবার রাতে ভায়াডোলিডের বিরুদ্ধেও গোলের দেখা পেলেন মেসি। আর তাতে নতুন উচ্চতায় পৌঁছালেন বার্সা অধিনায়ক। ছাড়িয়ে গেলেন ব্রাজিলের কালো মানিক খ্যাত পেলেকে। একটি ক্লাবের হয়ে সর্বোাচ্চ গোলের মালিক এখন মেসি। বার্সার হয়ে তার মোট গোল ৬৪৪, সান্তোসের হয়ে পেলের গোল ৬৪৩।

মেসির রেকর্ডের রাতে বার্সেলোনাও জিতেছে দারুণ ঢঙে। অ্যাওয়ে ম্যাচে ভায়াডোলিডকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে কাতালানরা। গত অক্টোবরের পর প্রথম প্রতিপক্ষের মাঠে জয় নিয়ে ফিরল কোমানের শিষ্যরা।
প্রথমার্ধের পুরোটা আধিপত্য করা বার্সেলোনা পুরো ম্যাচে অধিকাংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের উদ্দেশে মোট ২১টি শট নেয়, যার ১০টি ছিল লক্ষ্যে। অসংখ্য সুযোগ নষ্ট না হলে এবং ভাগ্য বিরূপ না হলে ব্যবধান হতে পারতো অনেক বেশি বার্সার।

ভায়াডোলিডের মাঠে বার্সা প্রথম গোলের দেখা পায় ২১ মিনিটে। তার আগে অন্তত দুটি শট অল্পের জন্য গোল হয়নি মেসির। এরপর মেসির ক্রসেই দারুণ হেডে বার্সাকে লিড এনে দেন ক্লেমেন্ট ল্যাঙলেট। আসরে ফরাসি ডিফেন্ডারের এটা প্রথম গোল। এগিয়ে গিয়ে বার্সেলোনার সবাই যেন একসঙ্গে তেতে ওঠে। একের পর এক আক্রমণে কোণঠাসা করে ফেলে প্রতিপক্ষকে।

৩৫ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মার্টিন ব্রাথওয়েট। বার্সা হয়ে ওঠে আরও দুরন্ত, ভয়ংকর। প্রতিপক্ষের টানা আক্রমণের মুখে প্রথমার্ধের অধিকাংশ সময়ে ভায়াডোলিডের সব খেলোয়াড়কে নিজেদের ডি-বক্সের আশেপাশে ব্যস্ত সময় কাটাতে হয়।

এক ক্লাবের হয়ে সর্বোচ্চ গোলের তালিকায় পেলেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ মেসি পান ৬৫ মিনিটে। পেদ্রির ব্যাক হিলে ডি-বক্সে বল পেয়ে প্রথম ছোঁয়ায় ডিফেন্ডারদের বাধা এড়িয়ে নিখুঁত শটে গোল করেন মেসি।

ছাপিয়ে যান পেলের ৬৪৩ গোলকে। ১৯ মৌসুমে যে রেকর্ড পেলে করেছিলেন স্বদেশী ক্লাব সান্তোসের হয়ে, মেসি তা করে দেখালেন ১৭ মৌসুমে বার্সার হয়ে।

এরপর বার্সার পাশাপাশি স্বাগতিকরাও দুই একটি গোলের সুযোগ তৈরি করেছিল। কিন্তু কোন দলই বাকি সময়ে জালের দেখা পায়নি। ৩-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা।
১৪ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে বার্সেলোনা। দিনের আরেক ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদের মাঠে ২-০ গোলে জেতা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ১৩ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে আছে শীর্ষে। ১৪ ম্যাচে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে রিয়াল মাদ্রিদ।