বগুড়ার ধুনট নিমগাছি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক শাহাদাত হোসেন4 মিনিটে পড়ুন

57

এম.এ রাশেদ,

বগুড়ার ধুনট উপজেলার ১নং নিমগাছি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে ইচ্ছা পোষণ করেছেন তরুণ সমাজ সেবক ও সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন , তিনি ধুনট উপজেলার নিমগাছি ইউনিয়নের সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি । বর্তমানে তিনি নিমগাছি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে সর্বক্ষণ শাহাদাত হোসেন দলীয় নেতাকর্মীসহ সকল স্তরের জনসাধারণের সঙ্গে গনসংযোগ করে দোয়া ও সমর্থন চেয়ে নির্বাচনী প্রচার- প্রচারণায় ব্যাস্ত সময় অতিবাহিত করছেন। আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের পক্ষে প্রতিদিনই গণসংযোগ করছেন তিনি। জনগণের কাছে তুলে ধরছেন বর্তমান সরকারের বাস্তবায়িত উন্নয়ন এবং গৃহীত চলমান উন্নয়ন প্রকল্প। দেশ-বিদেশে আওয়ামীলীগ সরকারের সাফল্যের চিত্র তুলে ধরে সাধারন জনগনের দ্বারে দ্বারে ভোট প্রার্থনা করছেন তিনি। এলাকার মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে শাহাদাত হোসেন গণসংযোগে যোগ দিচ্ছেন। তৃণমূল নেতা-কর্মী ও ভোটাররা তাকে অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে আবার। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহাদাত হোসেন বলেন , বর্তমান সরকারের উন্নয়নের জোয়ারে নৌকার পালে হাওয়া লেগেছে। নিমগাছি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও উপজেলা আওয়ামী নেতাকর্মীসহ আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড নেতারা যদি আমাকে মনোনয়ন দেয় তাহলে বিপুল ভোটের ব্যবধানে আল্লাহর রহমতে বিজয়ী হতে পারবো ইনশাআল্লাহ। তিনি আরো বলেন, দীর্ঘ ২৬ বছরেরও বেশি সময় ধরে রাজনীতির সাথে আমি জড়িত। আওয়ামী রাজনীতি করতে গিয়ে বিএনপি-জামাত-শিবিরের অনেক হামলা নির্যাতনের শিকার হয়েছি। তার ইউনিয়নে মাদক ও জুয়া বন্ধ করতে তার অবদান অপরিসীম বলে জানান তিনি ও মহামারী করোনা কালে তিনি অনেক হতদরিদ্র মানুষের মাঝে আর্থিক সহযোগিতা ও ত্রাণ বিতরণ করেছেন। সাবেক ছাত্রলীগ নেতা হলেন নিমগাছটি ইউনিয়নের নান্দিয়ার পাড়া গ্রামের মোঃ এনামুল হক এমদাদ হোসেন ছেলে শাহাদাত হোসেন , আরও বলেন শিক্ষা উন্নয়ন, সমাজ পরিবর্তন ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে মাদক সন্ত্রাস ও দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে বাংলার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে সাধারণ মানুষের সুখে -দুঃখে সবসময় পাশে থাকার চেষ্টা করেছি । অনেক রাজনীতিক আছে এক ভাই আওয়ামী লীগ, এক ভাই বিএনপি, আরেক ভাই জাতীয় পার্টি, আরেকভাই জামায়াত, গা বাঁচানোর জন্য সব দলের সাথে আঁতাত করে চলে। আমি ছাত্রজীবন থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে স্বতঃস্ফূর্তভাবে জড়িত ছিলাম । ছাত্রলীগের রাজনীতি করতে গিয়ে মামলাসহ অনেক হামলা নির্যাতনের শিকার পর্যন্ত হয়েছি। তবুও ছাত্রলীগের রাজনীতির ছাড়িনি বর্তমানে আমি ধুনট উপজেলার নিমগাছি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের মুল দলের সাথে রাজনীতি করে আসছি। সাহস নিয়ে আল্লাহর রহমতে আজ এ পর্যন্ত ন্যায় ও সততার শহীদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করে দায়িত্ব পালন করে আসছি। এজন্য চেয়ারম্যান পদে আমি দলের সমর্থন চাইবো। আমার রাজনীতিক ক্যারিয়ার , আমার চারিত্রিক যোগ্যতা, ইউনিয়নে গ্রহণযোগ্যতা ইত্যাদি বিবেচনা করে দলের হাইকমান্ড আমাকে এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন দিবেন বলে আশাবাদী হিসেবে বক্তব্য করেছেন।