সারিয়াকান্দিতে ৫৬ টি ইউক্যালিপ্টাস গাছ কর্তন করায় কোর্টে মামলা2 মিনিটে পড়ুন

51

এম.এ রাশেদ,স্টাফ রিপোর্টারঃ

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার কামালপুর ইউনিয়নের পাইকরতলী গ্রামে ৫৬ টি ইউক্যালিপ্টাস গাছ অবৈধভাবে কর্তন করেছে দুর্বৃত্তরা। গাছ কর্তনের বিষয়ে গত ২৩ নভেম্বর ২০২০ইং তারিখে বগুড়ার জেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সারিয়াকান্দি আমলী আদালতে ১২ জন কে আসামীর করে একটি মামলা দায়ের করেন,বাদী শাপলা খাতুন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পাইকরতলী মৌজার আর.এস ১০১১নম্বর খতিয়ানের ২৫৭১,২৫৭৩,২৫৫৮,৩৯৫৩,৩৯৫৪ ও ৩৯৫৮ লাগে মোট সাড়ে ২৮ শতক জমির মধ্যে ২৫৫৮ দাগের সম্পত্তিতে অবস্হিত ৫৬ টি ইউক্যালিপ্টাস ও মেহগনি গাছ রোপণ করেন শাপলা খাতুনের স্বামী আতাউর রহমান,তারা বর্তমানে পাইকরতলী গ্রামে বসবাস না করায়,সেই সুযোগে বাদীর রোপণকৃত গাছগুলো কর্তন করেন। পাইকরতলী গ্রামের ফয়েজ উদ্দিন মোল্লা ছেলে তফিজ উদ্দিন মোল্লা (৬৮) খলিলুর রহমান মোল্লা (৬৫)ও তার ছেলে আতাউর রহমান মোল্লা (৪৫), তফিজ উদ্দিন মোল্লা ছেলে রব্বানী মোল্লা (৫০), শাহজাহান আলী মোল্লা (৩৭), আতাউর রহমান মোল্লা ছেলে শামীম মিয়া ওরফে পলাশ (২২), আবুল হোসেন মন্ডল ছেলে রিদয় মাহমুদ ওরফে রিয়াদ(৩৯) রব্বানীর স্ত্রী পারভীন বেগম (৪৬),শাহজাহান আলীর মোল্লার স্ত্রী ইতি বেগম (৩৮), খলিলুর রহমান মোল্লার স্ত্রী মিলনা বেগম (৫৫), বড়াইল গ্রামের আব্দুর রশিদ প্রাং ছেলে মধু মিয়া (৩৫),ও ধুনট উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের বিলচাপড়ী গ্রামের মৃত আকরাম এর ছেলে রঞ্জু মিয়া, শাপলা খাতুন বলেন আমার ৫৬টি ইউক্যালিপ্টাস গাছ কর্তন করেন, যাহার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ৫ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সারিয়াকান্দি থানার এসআই সুলতান মাহমুদ জানান গাছ কর্তনের বিষয়ে সত্য প্রমাণিত পাওয়া গিয়েছে, আসামিদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে অতি শিগগিরই তদন্ত রিপোর্ট পাঠানো হবে।