কুমিল্লায় অটোরিকশায় ট্রেনের ধাক্কায় প্রাণ গেল স্বামী-স্ত্রীর2 মিনিটে পড়ুন

32

বগুড়া এক্সপ্রেস ডেস্ক

কুমিল্লায় মালবাহী ট্রেনের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার যাত্রী স্বামী-স্ত্রী নিহত হয়েছেন। বুধবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে কুমিল্লা মহানগরীর শাসনগাছা রেলগেটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, কুমিল্লার দেবিদ্ধার উপজেলার গজারিয়া গ্রামের ফরিদ মুন্সি (৭০) ও তার স্ত্রী পেয়ারা বেগম।

গুরুতর আহত হয়েছেন, অটোরিকশাচালক রাকিবুল হাসান ও নিহত ফরিদ মুন্সির মেয়ে আখি আক্তার (১৬)।

পুলিশ ও স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানাগেছে সকালে পৌনে ৭টার দিকে একটি যাত্রীবাহী অটোরিকশা শাসনগাছা রেলগেট এলাকায় আসে। এ সময় ট্রেন আসতে থাকায় রেলগেটের ব্যারিকেড ফেলা হচ্ছিল। গেটম্যান অটোরিকশাটিকে থামার সংকেত দেন। কিন্তু চালক তা উপেক্ষা করে রেললাইন অতিক্রমের চেষ্টা করেন।

গেটম্যান মিজানুর রহমান জানান, তিনি অটোরিকশাটিকে থামার সংকেত দিতে থাকেন। এছাড়া মালবাহী ট্রেনটিও হুইসেল দিতে থাকে। কিন্তু অটোরিকশাচালক তা উপেক্ষা করে রেললাইন পার হওয়ার চেষ্টা করেন। এসময় অটোরিকশাটিকে ধাক্কা দিয়ে প্রায় ৫ শ মিটার দূরে গিয়ে ট্রেন থামে। ততক্ষণে সিএনজির চালকসহ ৪জন গুরুতর আহত হন।

খবর পেয়ে কুমিল্লা রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইসলাম হোসেন সিরাজী ও কোতোয়ালি মডেল থানার পুলিশ স্থানীয় লোকজনসহ আহতদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। হাসপাতালে নেয়ার পর ফরিদ মুন্সি মারা যান। পরে সকাল ১০টার দিকে ঢাকা নেয়ার পথে ফরিদ মুন্সির স্ত্রী পেয়ারা বেগমও মারা যান।

নিহত ফরিদ মুন্সির ভাতিজা সোহেল রানা ও মন্সুর মুন্সী জানান, ফরিদ মুন্সি দীর্ঘ দিন ধরে অসুস্থ। চিকিৎসার জন্য বুধবার ভোরে ভাগনা রাকিবুল হাসানের (২২) অটোরিকশায় করে স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা হয়েছিলেন।