বুধবার থেকে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশন থেকে পাসপোর্ট বিতরণ3 মিনিটে পড়ুন

114

আপেল মাহমুদ। কুয়ালালামপুর থেকে

করোনায় আক্রান্ত কর্মচারী ও তাদের সংস্পর্শে থাকা সকলকে কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করে ৬ই জানুয়ারী বুধবার থেকে পাসপোর্ট সেবা পুনঃরায় চালু করতে যাচ্ছে মালয়েশিয়ায় অবস্থিত বাংলাদেশ হাইকমিশন।
রবিবার (৩ জানুয়ারী) মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের এক বিজ্ঞপ্তীর মাধ্যমে এ ঘোষণা দেয়া হয়। এর আগে কয়েকজন কর্মচারীর করোনা সংক্রমন ধরা পড়ায় ১০ জানুয়ারী পর্যন্ত পাসপোর্ট সেবা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিলো হাইকমিশন।

দুতাবাসের প্রধান রুহুল আমিন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তীতে বলা হয়, জরুরী সেবার কাজে নিয়োজিত বাংলাদেশ হাইকমিশন কুয়ালামামপুরের কয়েকজন কর্মচারীর করোনা আক্রান্ত হওয়ার কারণে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করে চিকিৎসা কেন্দ্রে পাঠানো এবং তাদের সংস্পর্শে আসা অন্যদের কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
তাই পূর্ব ঘোষণার ৪দিন আগেই পাসপোর্ট সেবা চালু করা হলো তাছাড়া মূল হাইকমিশন এবং আম্পাংস্থ পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্র সেনিটাইজেশনের মাধ্যমে জীবানুমুক্ত করার কার্যক্রম অব্যহত আছে।
এ অবস্থায় ০৬ জানুয়ারী ২০২১ থেকে পুনঃরায় আম্পাংস্থ অফিস থেকে পাসপোর্ট ডেলিভারি কার্যক্রম শুরু করা হবে। ইতোমধ্যে যারা ৬ জানুয়ারী বা তার পরবর্তী সময়ের জন্য এপয়েন্টমেন্ট গ্রহণ করেছেন তা বহাল থাকবে বলে জানানো হয়। ০১, ০৪ ও ০৫ জানুয়ারীতে এপয়েন্টমেন্ট গ্রহণকারীগণকে নিজ নিজ সুবিধাজনক দিনে পুনঃরায় এপয়েন্টমেন্ট গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করা হয়।
এছাড়া আগামী ০৯ ও ১০ জানুয়ারী ২০২১ ক্যামেরন হাইল্যান্ডস ও মুয়ার এ পাসপোর্ট বিতরণ যথারীতি বহাল থাকবে। এ বিষয়ে নিচের লিংক থেকে এপয়েন্টমেন্ট নেয়ার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়। http://appointment.bdhckl.gov.bd/other
একই সঙ্গে বিজ্ঞপ্তীতে হাইকমিশনে এবং পাসপোর্ট সেবা কেন্দ্র সমূহে আগত সকল সেবা প্রত্যাশীদের মালয়েশিয়া সরকার কর্তৃক নির্ধারিত COVID-19 সংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণের জন্য অনুরোধ করা হয়। উল্লেখ্য মালয়েশিয়ায় সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত রিকভার মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার শেষ হওয়ার কথা থাকলেও পুনরায় বৃদ্ধি করে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত করা হয়েছে।