শিবগঞ্জে মায়ের উপর অভিমান করে স্কুল ছাত্রীর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা2 মিনিটে পড়ুন

45

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার আটমূল ইউনিয়নের চক কানু উত্তরপাড়া গ্রামের আব্দুল হাকিমের স্কুল পড়ুয়া কন্যা মোছাঃ হাসি আক্তার (১৬) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্ম হত্যা করেছে।
জানা যায়, শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় হাসি বাড়ীতে কেবল নেটওয়ার্ক ডিস লাইনে টেলিভিশনে সিরিয়াল দেখতেছিল। এসময় তার মা রান্নার কাজে সহযোগিতা করার জন্য বললে হাসি তাতে অপারগতা প্রকাশ করে। একপর্যায়ে মা রোকসানা তাকে রাগান্বিত হয়ে বকাবকি করলে হাসি অভিমান করে তার মায়ের ঘরে চলে যায়। এসময় সে ঘরের দরজা বন্ধ করে মার উপর অভিমান করে নিজের ওড়না ঘরের তীরের সঙ্গে ঝুলিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তার মা ও চাচী ঘরের ধাক্কা দিয়ে খুলে মুমূর্ষ অবস্থায় হাসিকে উদ্ধার করে শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায় যে, হাসি আব্দুল হাকিমের আদরের কন্যা। এছাড়াও তার একটি ছয় বছরের পুত্র সন্তান রয়েছে। ছোট বেলা থেকেই সে একটু জেদী স্বভাবের মেয়ে ছিল। হাসি আমতলী মডেল স্কুলে নবম শ্রেণীর ছাত্রী। এ ঘটনায় খবর পেয়ে সহকারি পুলিশ সুপার শিবগঞ্জ সার্কেল মোঃ আরিফুল ইসলাম সিদ্দিকী ও শিবগঞ্জ থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হরিদাস মন্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ ঘটনায় উপ পুলিশ পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন মৃতের দেহের সুরুৎ হাল প্রতিবেদন তৈরি করেন। এব্যাপারে কোন অভিযোগ না থাকায় এবং পরিবারের পক্ষ থেকে ময়না তদন্ত ছাড়া মৃত দেহ দাফনের জন্য আবেদন করলে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে পুলিশ মৃত দেহ দাফনের জন্য পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়।