জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার কৃষক যাতে লাভবান হয় সেজন্য উদ্যোগ নিয়েছে- কৃষিবিদ আসাদুল্লাহ3 মিনিটে পড়ুন

31

আবু সাঈদঃ কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর খামারবাড়ি ঢাকা মহা পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আসাদুল্লাহ বলেন, বর্তমান সরকার জননেত্রী শেখ হাসিনা কৃষক যাতে ফসল উৎপাদন করে আর্থিকভাবে সাবলম্বী ও লাভবান হয় সেজন্য নানা উদ্যোগ নিয়েছে । কৃষিকে আধুনিকায়ন করার জন্য ব্যাপক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচেছ এবং আগামীতেই করা হবে। তিনি আরোও বলেন, আগামী দিনগুলোতে ধানের চারা রোপন করা ও কাটা জন্য আর মানুষের প্রয়োজন হবে না। কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার করে অল্প সময়ের মধ্যে ধান কাটা ও মাড়াই এর কাজ করা হবে। বিভিন্ন ফসলের বীজ বাইরের থেকে না ক্রয় করে, নিজেদের বীজ নিজেদেরই উৎপাদন করে প্যাকেট ও মোড়কের মাধ্যমে বাজারজাত করতে হবে। তাহলে সকল কৃষক লাভবান হবে। দিনদিন আবদযোগ্য জমির পরিমান কমে যাচ্ছে। এজন্য আমাদের ফলন বৃদ্ধি করতে হবে এবং মান সম্মত বীজ ও ইরি কোকুন ব্যবহার করতে হবে। কৃষক-কৃষানীদের উদ্দেশ্যে আরোও বলেন, ভাল বীজ নিতে চাইলে বীজ উদ্যোক্তা গড়ে তুলতে তুলন এবং ব্রিধান-৯০ এর এক গুন ফলন পাবেন ভাল চাল হবে চিকন। শনিবার দুপুরে রাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চত্ত্বরে বগুড়া সদর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের আয়োজনে মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। বগুড়া সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এনামুল হকের সঞ্চালনায় এবং কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর খামারবাড়ি বগুড়া এর উপ-পরিচালক কৃষিবিদ দুলাল হোসেনের সভাপতিত্বে আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃষক পর্যায়ে উন্নতমানের ধান,গম ও পাট বীজ উৎপাদন,সংরক্ষন ও বিতরন প্রকল্পের আওতায় মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর বগুড়া অঞ্চল অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ জি.এম.এ গফুর, মনিটরিং অফিসার জাহাঙ্গীর আলম । আরোও উপস্থিত ছিলেন আঃ জম শহীদ সরকার,এডিপিপি শামসুদ্দিন ফিরোজ, বগুড়া সদর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অফিসার ইসমত জাহান, বগুড়া সদর উপজেলা উপসহকারী কৃষিকর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম, আঃ হক, মুনসুর, মোখলেসার, রেজাউল করিম,সানজিদাসহ সদর উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের সকল কর্মকর্তা -কর্মচারী ও কৃষক-কৃষানীবৃন্দ। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আদর্শ কৃষক নুরুল হক ও দেলোয়ার হোসেন। অনুষ্ঠান শেষে কৃষকদের মাঝে ওজন মাপার যন্ত্র, সেলাই মেশিং ও ময়েশ্চার মিটার বিতরন করা হয়।