ইন্দোনেশিয়ায় বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাকবক্স উদ্ধার2 মিনিটে পড়ুন

34

অনলাইন ডেস্ক

ইন্দোনেশিয়ার জাভা সাগরে বিধ্বস্ত হওয়া শ্রীবিজয়া এয়ারের যাত্রাবাহী বিমানটির ব্ল্যাকবক্স উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। খবর রয়টার্স।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) ইন্দোনেশিয়ার উদ্ধারকারী কর্তৃপক্ষের বরাতে এ তথ্য জানানো হয়। স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, উদ্ধার করা ফ্লাইট ডেটা রেকর্ডারটি জাকার্তা বন্দরে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ইন্দোনেশিয়ার সেনাবাহিনীর প্রধান হাদি তাইয়ান্তো বলেন, ফ্লাইট ডেটা রেকর্ডারটি উদ্ধার করা হয়েছে। খুব শিগগিরই বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের ককপিট ভয়েস রেকর্ডারও উদ্ধার করা যাবে বলে তার বিশ্বাস।

এর আগে, শনিবার (৯ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় দুপুর আড়াইটায় রাজধানী জাকার্তা থেকে উড়াল দেওয়ার মাত্র চার মিনিটের মধ্যে জাভা সাগরে বিধ্বস্ত হয় শ্রীবিজয়া এয়ারের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট ১৮২। সে সময় বিমানে ৬২ আরোহী ছিলেন, যাদের সবাই মারা গেছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিকে, তিন হাজার ছয়শ’র বেশি উদ্ধারকর্মী, ১৩টি হেলিকপ্টার, ৫৪টি বড় জাহাজ এবং ২০টি ছোট নৌকা উড়োজাহাজটি যেখানে বিধ্বস্ত হয়েছে সাগরের সেই এলাকায় উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। সাগরের ২৩ মিটার গভীরে উড়োজাহাজটির ধ্বংসাবশেষ এবং মানবদেহের খণ্ডাংশ খুঁজে পাওয়া গেছে – বলে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে।

অন্যদিকে, মঙ্গলবার পর্যন্ত ঘটনাস্থল থেকে ৭৪টি বডি ব্যাগে করে মানবদেহের খণ্ডাংশ পুলিশের কাছে শনাক্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ জানায়, সোমবার (১১ জানুয়ারি) প্রথম এক আরোহীকে শনাক্ত করা হয়। তিনি হলেন ২৯ বছরের ফ্লাইট অ্যাটেনডেন্ট ওকি বিসমা। মৃতদেহ শনাক্ত করার জন্য ঘনিষ্ঠ স্বজনদের ডিএনএ সংগ্রহ করা হয়েছে। ‍মৃতদেহের সঙ্গে নমুনা মিলিয়ে দেখতে চার থেকে আট দিন সময় লেগে যাতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।