ভোটারদের জন্য বিরিয়ানি নিয়ে গেল প্রশাসন2 মিনিটে পড়ুন

41

বগুড়া এক্সপ্রেস ডেস্ক

একপাশে বড় বড় ডেকচিতে চলছে বিরিয়ানি রান্না। অন্যপাশে চলছে ভোট গ্রহণ। ভোটারদের কাছে টানতে কুষ্টিয়া পৌরসভার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের এক কাউন্সিলর প্রার্থীর এ আয়োজন। তবে শেষমেষ তার সে আয়োজনে জল ঢেলে দিয়েছে প্রশাসন।

কুষ্টিয়া পৌরসভার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের বারখাদা বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটকেন্দ্র এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয়রা জানায়, কাউন্সিলর পদপ্রার্থী রবিউল ইসলাম রবি বারখাদা বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের পাশে সকাল থেকে বিরিয়ানি রান্নার আয়োজন করেন। বড় বড় ডেকচিতে চলছিল রান্না। সেখান থেকে প্যাকেটজাত করে ভ্যানে ভরে বিরিয়ানি পাঠানো হচ্ছিল ভোটারদের বাড়ি বাড়ি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে সেখানে অভিযানে যান ভ্রাম্যমাণ আদালত। জব্দ করা হয় ১০টি ডেচকি ও ১০০ প্যাকেট বিরিয়ানি। পরে জব্দ করা খাবার এতিমখানার বাচ্চাদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

রান্নার কাজে নিয়োাজিতরা জানান, প্রায় ৯ মণ চালের বিরিয়ানি রান্না করা হচ্ছিল। আদালত পরিচালনাকারী ম্যাজিস্ট্রেট ও খোকসা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইসাহাক আলী জানান, নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে এ খাবার জব্দ করা হয়েছে। পরে খাবারগুলো এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।

এর আগে কাউন্সিলর প্রার্থী রবিউল ইসলাম রবি ভোটারদের মাঝে নারিকেল তেল বিতরণ করতে গিয়ে ১০ হাজার টাকার জরিমানা গোনেন। এছাড়া রবির লোকজন প্রতিপক্ষের প্রার্থীর ওপর হামলা চালিয়ে তিন জনকে আহত করে। এ ঘটনায় তার নামে মামলাও হয় থানায়।