উইন্ডিজের বিপক্ষে টানা তিন সিরিজ জয়ের রেকর্ড3 মিনিটে পড়ুন

32

খেলাধুলা ডেস্ক

১০০ বল আর ৭ উইকেট হাতে রেখেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ জিতল বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ১৪৯ রানের টার্গেট সহজেই উতরে যায় তামিম-সাকিবরা। এই জয়ে উইন্ডিজদের বিপক্ষে টানা তিনটি সিরিজ জয়ের রেকর্ড গড়ল টাইগাররা।

২০১৮ সালের জুলাইতে অ্যাওয়ে ভেন্যুতে ২-১ ব্যবধানে, একই বছর ডিসেম্বরে ঘরের মাঠে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ। আবারও ঘরের মাঠে এক ম্যাচ হাতে রেখেই নিশ্চিত হয়ে গেল সিরিজ জয়। সবমিলিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের হ্যাটট্রিক করল লাল-সবুজের বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সফরকারীদের দেওয়া ১৪৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা ভালোই করে টাইগাররা। দুই ওপেনার তামিম এবং লিটন দেখেশুনেই শুরু করেন। ভালোই খেলতে থাকা লিটন বিদায় নেন ব্যক্তিগত ২২ রান করে। তবে অন্যপ্রান্তে অটল থাকেন অধিনায়ক তামিম। শান্তকে সঙ্গে নিয়ে এগোতে থাকেন তিনি। দলীয় ৭৭ রানে বিদায় নেন শান্ত। তার ব্যাট থেকে আসে ১৭ রান। এরপর চতুর্থ উইকেট জুটিতে রানের চাকা সচল রাখেন সাকিব-তামিম। তামিম তুলে নেন ক্যারিয়ারের ৪৮তম হাফসেঞ্চুরি। ব্যক্তিগত ৫০ রান করেই ফিরে যান তামিম। তবে ক্রিজে আঁকড়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ম্যাচশেষে সাকিব অপরাজিত থাকেন ৫১ বলে ৪৩ রানে। এছাড়া মুশফিক অপরাজিত থাকেন ৯ রানে।

এর আগে সকালে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে টাইগার বোলারদের তোপে পড়ে ক্যারিবিয়রা। প্রথম ওয়ানডের মতো দ্বিতীয়টিতেও ধুঁকে ধুঁকে ব্যাট করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা। বাংলাদেশের বোলিংয়ের সামনে অসহায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ মাত্র ৪১ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে।
খেলতে পারেনি নির্ধারিত পুরো ৫০ ওভার। ৪৩.৪ ওভারে অলআউট হয়েছে ১৪৮ রানে। বাংলাদেশের হয়ে মেহেদি মিরাজ নেন ২৫ রানে ৪ উইকেট। এছাড়া সাকিব ও মুস্তাফিজ নেন ২টি করে উইকেট। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন মেহেদি মিরাজ।

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে এক ম্যাচ হাতে রেখেই ২-০’তে এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হবে ২৫ জানুয়ারি চট্টগ্রামের মাটিতে।