নির্যাতিতা পূর্ণিমা রাণী শীলকে নিয়ে চলচ্চিত্র, যুক্ত হলেন সালওয়া3 মিনিটে পড়ুন

38

বিনোদন ডেস্ক

২০০১ সালে অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় এলে দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন নেমে আসে। সেবার নির্বাচনের মাত্র এক সপ্তাহের মাথায়ই ৮ অক্টোবর সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া থানার দেলয়া গ্রামের অনিল কুমার শীলের বাড়িতে হামলা চালায় মৌলবাদী সন্ত্রাসীরা। হামলাকারীরা অনিল কুমারের ছোট মেয়ে পূর্ণিমাকে দলবেঁধে ধর্ষণ করে। সেসময় দশম শ্রেণিতে পড়তেন তিনি। পাশবিক অত্যাচারের পর প্রায় বাকরুদ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন পূর্ণিমা।

ধর্ষণকারীরা সবাই বিএনপি-জামায়াত জোটের সমর্থক হিসেবে চিহ্নিত হয়েছিল। ২০১১ সালের ৪ মে এই ধর্ষণ মামলায় ১১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করে আদালত।

ঠিক এই ঘটনার ওপর ভিত্তি করে নির্মিত হতে যাচ্ছে। চলচ্চিত্রের নাম বুবুজান। এই ছবিতে চুক্তি বদ্ধ হলেন মিসওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের রানার্স আপ নিশাত নাওয়ার সালওয়া। ইতোমধ্যে সালওয়া কবরি সারওয়ারসহ চারজন নির্মাতার ছবিতে কাজ করেছেন যদিও সেসব এখনো মুক্তি পায়নি। এরইমধ্যে সালওয়া জানালেন নতুন খবর। তাঁর বিপরীতে অভিনয় করবেন শান্ত খান। আর পূর্ণিমা রাণী শীলের চরিত্রে কে অভিনয় করছেন তা নিশ্চিত নয়।

নিশাত নাওয়ার সালওয়া বিষয়টি কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমি ছবির গল্প শুনেছি। আমার বিপরীতে রয়েছে শান্ত খান। ওর সাথে কথা বলেই মূলত ছবিটিতে কাজ করার আগ্রহ তৈরি হয়েছে। ওর বুবুজানকে ঘিরেই এই চলচ্চিত্রের কাহিনি। এখানে আমার চরিত্রটি সত্য ঘটনাকে মাঝখানে রেখে আবর্তিত হবে।’

শাপলা মিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত হতে যাওয়া এই চলচ্চিত্রের আনুষাঙ্গিক বিষয় নিয়ে কথা বলতে নির্মাতা শামীম আহমেদ রনীকে ফোন দেয়া হলে তিনি ধরেননি।

এদিকে নিশাত নাওয়ার সালওয়ার অভিনয় সম্পন্ন হওয়া ছবিগুলো হলো- স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা, এই তুমি সেই তুমি, সাইদুল ইসলাম রানা বীরত্ব, বুবুজান,

২০১৮ সালে তৎকালীন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম তার ব্যক্তিগত কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেন পূর্ণিমা রাণী শীলকে। তবে পরে তারানা হালিম ডাক না পাওয়ায় সেই চাকরিটিও হারান পূর্ণিমা।