গাইবান্ধায় মহিলা পরিষদের সংবাদ সম্মেলন2 মিনিটে পড়ুন

46

শাহারুল ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গার্ড অব অনার দেয়ার ক্ষেত্রে নারী ইউএনও’র বিকল্প চাওয়ায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, গাইবান্ধা জেলা শাখা তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে।

এর প্রতিবাদে ১৬ জুন বুধবার গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে সংগঠনের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়, একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর পর তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করা রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রদর্শন, কোনো ধর্মীয় অনুষ্ঠান নয়। ধর্ম হচ্ছে মানুষের ব্যক্তিগত চর্চা। মৃত ব্যক্তির জানাজা আর রাষ্ট্রীয় সম্মান জানানোর রীতিকে এক করে ফেলা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির কাছ থেকে এমন সিদ্ধান্তের কথা শোনা নিতান্তই দুঃখজনক। তাদের এ ধরনের সুপারিশ মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী।

সংবাদ সম্মেলন থেকে নারীর প্রতি অবমাননাকর এমন সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন না করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি দাবি জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, গাইবান্ধা জেলা শাখার সভাপতি মাহাফুজা খান মিতা, সাধারণ সম্পাদক রিকতু প্রসাদ, কোষাধ্যক্ষ কানিজ ফাতেমা, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মায়া রাণী পোদ্দার, সহ-সম্পাদক লায়লা নাছরিন, আন্দোলন সম্পাদক অঞ্জলী দাস ও প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক মণিকা প্রসাদ প্রমূখ।