আদমদিঘীতে পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা2 মিনিটে পড়ুন

101

অনলাইন ডেস্ক
বগুড়ার আদমদীঘিতে এক মৎস্যচাষির পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে আড়াই লাখ টাকার মাছ মরে গেছে বলে মৎস্যচাষি রোস্তম আলী দাবি করেছেন।

এ ঘটনায় বুধবার রাতে ওই ব্যবসায়ী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। উপজেলার নিমকুড়ি গ্রামে তার লিজ নেয়া পুকুরে ঘটনাটি ঘটে।

অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার মঠপুকুরিয়া গ্রামের মৎস্যচাষি রোস্তম আলী চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে নিমকুড়ি গ্রামে ৪৮ শতকের একটি পুকুর লিজ নিয়ে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করছেন। মঙ্গলবার (১৫ জুন) দিবাগত রাতে কোনো এক সময় পুকুরে বিষ (গ্যাস ট্যাবলেট) প্রয়োগ করে দুর্বৃত্তরা। পরে বুধবার সকাল ১০টার দিকে পুকুরের মাছ মরে ভেসে উঠতে থাকে। স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে বিষয়টি মৎস্যচাষি রোস্তুম আলীকে জানান।

মৎস্যচাষি রোস্তম আলী অভিযোগে আরও উল্লেখ করেন, নিমকুড়ি গ্রামের ফেরদৌস হোসেনের ওপর বিষয়টি নিয়ে তার সন্দেহ হয়। এরপর তিনি ওই গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলতে গেলে ফেরদৌস অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে রোস্তমকে মারতে আসেন। এরপর বুধবার রাত ৯টায় তিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দীন বিষয়টির সতত্যা নিশ্চিত করে বলেন, ‘তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’