বগুড়ায় সূচনা স্পোর্টিং ক্লাবের আয়োজনে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও ফুটবল টুর্নামেন্ট4 মিনিটে পড়ুন

102

আবু সাঈদ হেলাল স্টাফ রিপোর্টার
বগুড়ায় সূচনা স্পোর্টিং ক্লাবের রজত জয়ন্তী ও নবযাত্রা উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা ও শহীদ গোলাম হায়দার স্মৃতি স্মরণে ফুটবল টুর্নামেন্ট গতকাল শুক্রবার গন্ডগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান একেএম আসাদুর রহমান দুলু।
এসময় তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্রীড়াঙ্গনকে সমৃদ্ধশালী করতে সব ধরনের আয়োজন অব্যাহত রেখেছেন। শত ব্যস্ততার মাঝেও তিনি তৃনমুল পর্যায়ের ভালো খেলোয়াড়দের চিহিৃত করে জাতীয় পর্যায়ে পুরস্কৃত করে এক উজ্জল দৃষ্টান্ত ¯াপন করেছেন। খেলাধুলার মাধ্যমে তিনি যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে চান। বর্তমান সরকার খেলাধুলা বান্ধব সরকার। এ সরকারের আমলে দেশের ক্রিকেট অঙ্গন গোটা দুনিয়া জুড়ে সমাদৃত হয়েছে। অতি সম্প্রতি বাজেটে ক্রীড়াঙ্গনে উল্লেখযোগ্য বাজেট প্রনয়ন করায় ভবিষ্যতে ফুটবল অঙ্গনও বিশ্বে ব্যাপক সুনাম কুড়াতে সক্ষম হবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। যুব সমাজকে বিপথগামী হতে রক্ষা করার সর্বোৎকৃষ্ট পšাই হচ্ছে তাদেরকে খেলাধুলা প্রেমী করে গড়ে তোলা। সবলতা এক দিকে মানুষের জনমুহুর্তের অঙ্গীকার ঠিক তেমনি শারীরিক সু¯্যতায় মানসিক বলিষ্ঠতার উপায় ও উপকরণ। খেলাধুলাই পারে যুবসমাজকে মাদক, বাল্যবিবাহ, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসসহ সকল অন্যায় থেকে দূরে রাখতে। এর মাঝেই মানুষ খুঁজে পায় জীবন বিকাশের উন্মুক্ত বিশালতা, পায় জীবন সংগ্রামের দুর্জয় মনোভাব, লাভ করে সাফল্য উচ্ছাস। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে তখনই এক মন এক প্রানের সান্নিধ্যে পৌঁছে যখন দলবদ্ধ হয়ে সর্বশক্তি দিয়ে প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নামে।

তিনি আরো বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের যথাযথ সম্মান, তাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মদের বিশেষ কোটায় চাকুরী প্রদানসহ নানারকম উদ্যোগ বাস্তবায়ন করছেন এ সরকার। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭মার্চের ভাষন, ৩০লক্ষ শহীদ ও ২লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমহানির বিনিময়ে দেশ স্বাধীনের ইতিহাসসহ ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে।
সুলতানগঞ্জ ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাজেদুল ইসলাম মিলনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলমগীর হোসেন স্বপন, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা রাফিউল ইসলাম রাফি, সমাজসেবক জাফরুল ইসলাম বাদল, ৭নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা এস এম মোন্তাকুল ইসলাম বিজয়, ১৩নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলী হায়দার টিক্কা, শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোতাহার হোসেন মিজু ।
সরকারি আজিজুল হক কলেজ ছাত্রলীগ সাবেক শিক্ষা সম্পাদক রাকিব মন্ডলের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপ¯িত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা জাফর ইসলাম, আজাহারুল ইসলাম, ইউনুস আলী, মিনার হোসেন, শহীদ গোলাম হায়দারের ছেলে শহিদুল ইসলাম শহীদ, নেছারুল ইসলাম নয়ন, জেলা তাঁতী লীগ নেতা আলামিন হোসেন সুমন, সূচনা ক্লাবের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া জনি, শাজাহান, লয়া মন্ডল, সাইফুল, মিথুন, সাগর, সুলতান, বিপ্লব, রাজন, আপন, সিহাদ প্রমুখ।
মুক্তিযোদ্ধারা মুক্তিযুদ্ধ ও শহীদ গোলাম হায়দারের যুদ্ধের বর্ণনা করতে গিয়ে আবেগআপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।
প্রধান অতিথি মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও ফুটবল টুর্নামেন্টে বিজয়ী দলের হাতে ৫০হাজার টাকা ও ট্রফি তুলে দেন।