শিবগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ: কলেজ ছাত্র গ্রেফতার2 মিনিটে পড়ুন

189

নিজস্ব প্রতিবেদক

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় বিয়ের প্রলোভনে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। রবিবার দিবাগত রাতে শিবগঞ্জ থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী ঐ নারী । এ ঘটনায় সফিউল ইসলাম নামে এক কলেজ ছাত্র কে সোমবার ভোরে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযুক্ত সাফিউল উপজেলার কিচক ইউনিয়নের মাটিয়ান দক্ষিণপাড়া গ্রামের আব্দুল হামিদ এর পুত্র এবং সরকারি আজিজুল হক কলেজ এর অনার্স তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী নারীর চার বছর আগে বিয়ে হয়। তার বিয়ের পর থেকেই সফিউল তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। একপর্যায়ে সফিউল তাকে বিয়ের প্রস্তবসহ জমি লিখে দেওয়ার প্রস্তাব দেন। এতে ওই নারী রাজি হয়ে যায়। পরে সফিউলের কথা অনুযায়ী স্বামীকে ডিভোর্সও দেন ওই নারী। তাদের প্রেমের সম্পর্ক চলাকালে গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর রাত ১১টার দিকে ভুক্তভোগী নারীর বাড়িতেই একাধিক বার তাকে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ। বর্তমানে তিনি (নারী) সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা। চলতি বছরের ২৫ জুলাই সকালে ওই নারী সাফিউলের সঙ্গে বিয়ের বিষয়ে আলোচনা করেন। এতে সফিউল ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে গালাগালাজ ও হুমকি দিয়ে চলে যান।

জানতে চাইলে শিবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় সফিউলকে সোমবার ভোরে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিকেলে তাকে আদালতে নেওয়া হবে।