দুপচাঁচিয়ায় দেশীয় অস্ত্র,মাদক বিক্রেতা এবং অপহরন মামলার আসামী সহ আটক ৫2 মিনিটে পড়ুন

18

দুপচাঁচিয়া(বগুড়া)প্রতিনিধিঃ
বগুড়ার দুপচাঁচিয়া থেকে দেশীয় অস্ত্র,মাদক বিক্রেতা এবং নারী অপহরন মামলার আসামী সহ আটক ৫। ২৮ জুন মঙ্গলবার দিবাগত রাত সোয়া এগারোটায় দিকে পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে দেশীয় অস্ত্র,মাদক বিক্রেতা এবং অপহরন মামলার আসামীকে আটক করে দুপচাঁচিয়া থানা পুলিশ।

দুপচাঁচিয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ আবুল কালাম আজাদ জানান,এসআই বকুল হেসেন এসআই সঙ্গীয় ফোর্স সহ একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার দিবাগত রাত সোয়া এগারোটার দিকে দুপচাঁচিয়া থানাধীন জিয়ানগর বালুকাপাড়া(খিদিরপাড়া)সমির মন্ডলের ছেলে মুক্তার মন্ডল কামরুজ্জামান(৩৫),অপরজন মৃত:-রবিয়ার ছেলে আব্দুর রহিম বাদশা(৪৯).রাব্বী হোসেন(২০), পিতা-মোঃআশরাফুল ইসলাম সাগর (বর্তমান তার মায়ের সংগে বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ায়) মাতা;-বিথী বেগম আক্কেলপুর রেল কলোনীর তালতলা বাজার এলাকায় বসবাস করে।৩ জন মিলে মাদক বিক্রি করার সময় পুলিশ উপস্থিত হলে মাদক বিক্রেতারা পুলিশি উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাবার সময় ৩ জনকে আটক করে। অটকদের কাছ থেকে মাদকদ্রব্য হিসাবে গাঁজা জব্দ করে।
এছাড়াও বুধবার দিবাগত রাত পৌনে ৪টার দিকে থানার এসআই আলেফ উদ্দিন ও এসআই বকুল হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স সহ একটি আভিযানিক দল থানা এলাকায় টহল অবস্থায় দুপচাঁচিয়া থানাধীন ভালী কাথোহালী গ্রামের মৃত-ছালামতের ছেলে আব্দুর রশীদ(৩৯)কে গভীর রাতে এলাকায় বড় ধরনের ছোঁড়া(চাকু) নিয়ে ঘোরাফেরার এক পর্যায়ে তাঁকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
এবাদে দুপাচাঁচিয়া থানায় পূর্বের নারী অপহরন মামলার পলাতক আসামী গোবিন্দপুর ইউনিয়নের প্রামানিকপাড়ার আঃগোফ্ফার আলীর ছেলে জহুরুল ইসলাম(২০)কে এসআই নিয়ামন নাসির আটক করে।
আটক ৩ জনকে মাদকদ্রব্য আইনে মামলার দায়ের ও অপর আসামী ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনে মামলা রুজু সহ সকল আসামীদেরকে বগুড়া বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হয়।