পরিমল-হিমু-হিরু পশারীসহ ৫ নেতা ১৮ মাস পর বগুড়া বিএনপির প্রাথমিক সদস্য পদ ফিরে পেলেন4 মিনিটে পড়ুন

52

স্টাফ রিপোর্টার

দীর্ঘ ১৮ মাস পর বিএনপির প্রাথমিক সদস্য পদ ফিরে পেয়েছেন বগুড়া জেলা বিএনপির সাবেক ৫ নেতা। বৃহস্পতিবার রাতে বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক ও সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম মোঃ সিরাজ তাঁর বগুড়া শহরের সূত্রাপুরস্থ আবাসিক কার্যালয়ে দলের এ সংক্রান্ত চিঠি ওই ৫ নেতার হাতে হস্তান্তর করেন। এ সময় তিনি দলের ঐক্য সুদৃঢ় করে দলকে আরো শক্তিশালী করতে কাজ করার জন্য তাদের প্রতি আহবান জানান। উক্ত ৫ নেতা হলেন , বগুড়া জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম

সম্পাদক ও বগুড়া পৌর সভার ৬ নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর পরিমল চন্দ্র দাস, বগুড়া জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সাবেক সভাপতি এবং পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর শাহ মোঃ মেহেদী হাসান হিমু, জেলা জাসাস এর সাবেক সাধারন সম্পাদক ও পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন পশারী হিরু, জেলা বিএনপির সাবেক তাঁতী বিষয়ক সম্পাদক ও পৌরসভার ২ নং
ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর তৌহিদুল ইসলাম বিটু এবং জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সাবেক সাংগাঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক।
চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও দলের দপ্তর সম্পাদকের চলতি দায়িত্বে নিয়োজিত সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স। পৃথক পৃথক চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ইতোপূর্বে আপনাকে দলের শৃংখলাপরিপহ্নী কাজের সাথে
জড়িত থাকার সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে বিএনপির সকল পদ পদবী সহ
প্রাথমিক সদস্য পদ স্থগিত করা হয়। আপনার আবেদনের প্রেক্ষিতে পদ পদবী
স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার পূর্বক প্রাথমিক সদস্য পদ পূনর্বহাল করা হলো। পরবর্তী
সিদ্ধান্ত না দেয়া পর্যন্ত বিএনপি এবং এর কোন অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের
কোন পদে অন্তর্ভ’ক্তি স্থগিত থাকবে । এদিকে দলে ফিরতে সুযোগ দেয়ায় তারা দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া , ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান , বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক গোলাম মোঃ সিরাজের প্রতি কৃত¹তা প্রকাশ করেছেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক অ্যাডভোকেট একেএম সাইফুল ইসলাম ও ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, সাবেক জেলা সভাপতি পৌর নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম বাদশা, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আলী আজগর তালুকদার হেনা, শহর বিএনপির আহবায়ক মাহবুবর রহমান বকুল , এম আর ইসলাম স্বাধীন, হামিদুল হক
চৌধুরী হিরু, মীর শাহে আলম প্রমুখ।
উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ১৫ মে ভিপি সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বাধীন জেলা
বিএনপির নির্বাহী কমিটি বিলুপ্ত করে গোলাম মোঃ সিরাজের নেতৃত্বে বগুড়া
জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি ঘোষনার পর দলের শৃংখলা ভঙ্গ করে কমিটি বাতিল দাবীতে রাজপথে কর্মসূচী পালন করেন দলের কিছু নেতাকর্মী। এর সাথে জড়িতউক্ত ৫ নেতাসহ বেশ কয়েকজনের পদ পদবীসহ প্রাথমিক সদস্য পদ স্থগিত করা হয়।
এরপর তারা বিগত ১৮ মাস দলীয়কর্মকান্ডের বাইরে ছিলেন।দলের এই সিদ্ধান্তকে কর্মি ও সমর্থকরা স্বাগত জানিয়েছেন।

এস আই সুমন
স্টাফ রিপোর্টার,বগুড়া।
তারিখঃ ০৬/১১/২০২০ ইং